ঢাকা ১২:২৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ঈদুল ফিতরের দিনের ফজিলত, সুন্নত, করণীয় ও বর্জনীয় ইতালির ভেনিসে প্রথম এবং প্রাচীনতম ভেনিস বাংলা প্রেস ক্লাব ইতালির উদ্যোগে ইফতার মাহফিল ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বগুড়া শেরপুর নদী থেকে, এক বস্তা দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার। মিরপুরে তিন শতাধিক পথশিশুদের মাঝে ইফতার বিতরণ করল উইনসাম স্মাইল ফাউন্ডেশন কুমারখালী ব্লাড ডোনেশনের ঈদ উপহার পৌঁছে গেল অসহায়দের বাড়ি বাড়ি রক্তের বন্ধন ঝাউগড়া শাখার নতুন কমিটি পরিচিতি সভার উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল বগুড়া শাহজাহানপুর উপজেলার চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান দুইটি আগ্নেয়  অস্ত্রসহ গ্রেফতার। গাজীপুর কাঁচামাল আড়্ৎদার মালিক গ্রুপ এর আয়োজনে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে যাকাতের বস্ত্র বিতরণ ২০২৪ অনুষ্ঠিত নড়াইলে পুলিশের পৃথক অভিযানে ইয়াবা ও সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার ৪ আমরা সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজদের নিয়ে রাজনীতি করিনা -হুইপ সানজিদা খানম

সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যা মামলার আসামি কারাগারে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

হাসান আহমেদ নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 
  • আপডেট সময় : ০৫:২৭:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৩৯ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

হাসান আহমেদ নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 

নারায়ণগঞ্জ বন্দরের সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যা মামলার আসামি তুষার নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। সাংবাদিক ইলিয়াস দৈনিক বিজয় পত্রিকার বন্দর সংবাদদাতা ছিলেন।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে এই ঘটনা ঘটে। নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল সুপার মোকাম্মেল হোসেন তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

মোকাম্মেল হোসেন জানান, তুষার সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দিয়েছিলেন। ২০২০ সাল থেকে তিনি কারাগারে ছিলেন। মামলাটির কার্যক্রমও শেষ পর্যায়ে ছিল। ইদানীংকালে তুষার কারাগারে নিয়মিত নামাজ পড়া শুরু করে। তাহাজ্জুদ নামাজও পড়তেন তিনি। সবার কাছে তিনি দোয়া চাইতেন আর বলতেন, আমার কখন কী হয়ে যায় জানি না, তোরা সবাই আমার জন্য দোয়া করিস।

তিনি বলেন, সম্ভবত আগে থেকেই তিনি আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নিয়ে রেখেছিলেন। চাদর ছিঁড়ে গলায় ফাঁস দেন তিনি। কয়েদিরা ও কর্তব্যরত কারারক্ষীরা ঘটনাটি দেখে তাকে দ্রুত নামিয়ে শহরের ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে (ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল) নিয়ে গেলে ৩০ মিনিট পর মারা যান তুষার।

২০১৮ সালে মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় শামীম নামে এক যুবকের সাথে তুষারের ঝগড়া হয়। ওই সময় তুষার লাঠি দিয়ে শামীমের মাথায় আঘাত করলে গুরুতর আহত হন শামীম। এ ঘটনায় তুষারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন শামীম। আর সেই মামলা করতে সাংবাদিক ইলিয়াস উস্কানি দিয়েছিলেন বলে ধারণা তুষারের। এছাড়াও এলাকায় অবৈধ গ্যাস লাইনের সংযোগ দেওয়ার টাকা নিয়ে তুষার, ইলিয়াস, মাসুদসহ আরো কয়েকজনের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এসবের জের ধরেই সাংবাদিক ইলিয়াসকে হত্যা করা হয়।

জানা গেছে, ২০২০ সালের ১১ অক্টোবর রাতে বাসায় যাওয়ার পথে উপজেলার আদমপুর এলাকায় অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা সাংবাদিক ইলিয়াসকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। নিহত ইলিয়াস স্থানীয় দৈনিক বিজয় পত্রিকার বন্দর সংবাদদাতা ছিলেন। ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তুষারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে সময় তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী ধারালো ছুরিও উদ্ধার করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যা মামলার আসামি কারাগারে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ০৫:২৭:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

হাসান আহমেদ নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 

নারায়ণগঞ্জ বন্দরের সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যা মামলার আসামি তুষার নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। সাংবাদিক ইলিয়াস দৈনিক বিজয় পত্রিকার বন্দর সংবাদদাতা ছিলেন।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে এই ঘটনা ঘটে। নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল সুপার মোকাম্মেল হোসেন তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

মোকাম্মেল হোসেন জানান, তুষার সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দিয়েছিলেন। ২০২০ সাল থেকে তিনি কারাগারে ছিলেন। মামলাটির কার্যক্রমও শেষ পর্যায়ে ছিল। ইদানীংকালে তুষার কারাগারে নিয়মিত নামাজ পড়া শুরু করে। তাহাজ্জুদ নামাজও পড়তেন তিনি। সবার কাছে তিনি দোয়া চাইতেন আর বলতেন, আমার কখন কী হয়ে যায় জানি না, তোরা সবাই আমার জন্য দোয়া করিস।

তিনি বলেন, সম্ভবত আগে থেকেই তিনি আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নিয়ে রেখেছিলেন। চাদর ছিঁড়ে গলায় ফাঁস দেন তিনি। কয়েদিরা ও কর্তব্যরত কারারক্ষীরা ঘটনাটি দেখে তাকে দ্রুত নামিয়ে শহরের ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে (ভিক্টোরিয়া হাসপাতাল) নিয়ে গেলে ৩০ মিনিট পর মারা যান তুষার।

২০১৮ সালে মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় শামীম নামে এক যুবকের সাথে তুষারের ঝগড়া হয়। ওই সময় তুষার লাঠি দিয়ে শামীমের মাথায় আঘাত করলে গুরুতর আহত হন শামীম। এ ঘটনায় তুষারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন শামীম। আর সেই মামলা করতে সাংবাদিক ইলিয়াস উস্কানি দিয়েছিলেন বলে ধারণা তুষারের। এছাড়াও এলাকায় অবৈধ গ্যাস লাইনের সংযোগ দেওয়ার টাকা নিয়ে তুষার, ইলিয়াস, মাসুদসহ আরো কয়েকজনের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এসবের জের ধরেই সাংবাদিক ইলিয়াসকে হত্যা করা হয়।

জানা গেছে, ২০২০ সালের ১১ অক্টোবর রাতে বাসায় যাওয়ার পথে উপজেলার আদমপুর এলাকায় অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা সাংবাদিক ইলিয়াসকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। নিহত ইলিয়াস স্থানীয় দৈনিক বিজয় পত্রিকার বন্দর সংবাদদাতা ছিলেন। ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তুষারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে সময় তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী ধারালো ছুরিও উদ্ধার করা হয়।