ঢাকা ০১:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
নড়াইলে ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার বেইলি রোডের আগুন নিয়ন্ত্রণে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছেন র‍্যাব-৩ নাটোরের লালপুর তাফসীর মাহফিলে খৃষ্টান যুবকের ইসলাম ধর্ম গ্রহন নারায়ণগঞ্জ  শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বইমেলায় কবিদের উত্তরীয় দিয়ে বরণ কুড়িগ্রামে ৫.১ কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার কৃষক হত্যা মামলায় জয়পুরহাটে ৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড কুড়িগ্রামের উলিপুরে রাস্তা পাকা করন কাজের উদ্বোধন গাজীপুরে মাদ্রাসার সুপার ও সভাপতির দূর্ণীতি, অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন নড়াইলের শান্তা সেনের মেডেকেল শিক্ষা জীবন সম্পন্ন করতে দারিদ্র বাবা-মায়ের দুঃশিন্তা নড়াইলে শিশু নুসরাত হত্যার রহস্য উদঘাটন ঘাতক সৎ মা গ্রেফতার

রুবেল হত্যার রহস্য উদঘাটন” হত্যাকাণ্ডে জড়িত ৩ জনসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

হীমেল কুমার মিত্র, স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট সময় : ০৯:২৪:৫৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৩ ১১০ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

হীমেল কুমার মিত্র, স্টাফ রিপোর্টারঃ

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার গাইবান্ধা অটোভ্যান চালক রুবেল হত্যার রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িত ৩ জনসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

(২৮ এপ্রিল) শুক্রবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয় সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার মো. কামাল হোসেন।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন, সরাসরি হত্যায় অংশ নেয়া মো. ওবায়দুল ইসলাম ও রুবেল মিয়া বাদিনার পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ জহুরুল ইসলামের ছেলে ও তাদের বন্ধু বরিশাল জেলার হিজলা থানার গুয়াবাড়িয়া গ্রামের শামসুল হক চৌকিদারের ছেলে জসীম উদ্দিন। এবং ভ্যান ক্রয়-বিক্রয়ের সঙ্গে জড়িত সাঘাটা উপজেলার বার কোনা গ্রামের মৃত মহাসিন আকন্দের ছেলে মো. সাজু মিয়া ও একই গ্রামের মৃত চশমতুল্লা আকন্দের ছেলে মো. রেজাউল করিম।

পুলিশ সুপার মো. কামাল হোসেন জানান, গত ২০ মার্চ দুপুরে সাঘাটা থানার বাদিনার পাড়া গ্রামের একটি ভুট্টা ক্ষেত থেকে অটোভ্যান চালক রুবেলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও হত্যার কারণ উদঘাটন সম্ভব হচ্ছিল না। বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

পরে দীর্ঘ প্রচেষ্টায় তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ও একাধিক সিসিটিভি ফুটেজ দেখে হত্যাকারীদের চিহ্নিত করা হয় এবং ঢাকার জিরাবো এলাকা থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) হত্যায় সরাসরি অংশ নেয়া ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্য মতে সাঘাটা থেকে ভ্যানটি ক্রয় করার অপরাধে আরও দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে রুবেলের ছিনতাই হওয়া ভ্যানের বিভিন্ন অংশ ও তার মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, হত্যাকারীরা তার অটোভ্যানটি ছিনতাইয়ের উদ্দেশে তাকে ভুট্টা খেতে নিয়ে গিয়ে গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে এবং পাশের বাজারে ৯ হাজার ৫শ’ টাকায় অটোভ্যানটি বিক্রি করে ঢাকায় চলে যায়। গ্রেফতার ব্যক্তিদের আদালতের মাধ্যমে আজ জেলা হাজতে পাঠানো হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রুবেল হত্যার রহস্য উদঘাটন” হত্যাকাণ্ডে জড়িত ৩ জনসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

আপডেট সময় : ০৯:২৪:৫৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৩

 

হীমেল কুমার মিত্র, স্টাফ রিপোর্টারঃ

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার গাইবান্ধা অটোভ্যান চালক রুবেল হত্যার রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িত ৩ জনসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

(২৮ এপ্রিল) শুক্রবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয় সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার মো. কামাল হোসেন।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন, সরাসরি হত্যায় অংশ নেয়া মো. ওবায়দুল ইসলাম ও রুবেল মিয়া বাদিনার পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ জহুরুল ইসলামের ছেলে ও তাদের বন্ধু বরিশাল জেলার হিজলা থানার গুয়াবাড়িয়া গ্রামের শামসুল হক চৌকিদারের ছেলে জসীম উদ্দিন। এবং ভ্যান ক্রয়-বিক্রয়ের সঙ্গে জড়িত সাঘাটা উপজেলার বার কোনা গ্রামের মৃত মহাসিন আকন্দের ছেলে মো. সাজু মিয়া ও একই গ্রামের মৃত চশমতুল্লা আকন্দের ছেলে মো. রেজাউল করিম।

পুলিশ সুপার মো. কামাল হোসেন জানান, গত ২০ মার্চ দুপুরে সাঘাটা থানার বাদিনার পাড়া গ্রামের একটি ভুট্টা ক্ষেত থেকে অটোভ্যান চালক রুবেলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও হত্যার কারণ উদঘাটন সম্ভব হচ্ছিল না। বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

পরে দীর্ঘ প্রচেষ্টায় তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ও একাধিক সিসিটিভি ফুটেজ দেখে হত্যাকারীদের চিহ্নিত করা হয় এবং ঢাকার জিরাবো এলাকা থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) হত্যায় সরাসরি অংশ নেয়া ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্য মতে সাঘাটা থেকে ভ্যানটি ক্রয় করার অপরাধে আরও দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে রুবেলের ছিনতাই হওয়া ভ্যানের বিভিন্ন অংশ ও তার মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, হত্যাকারীরা তার অটোভ্যানটি ছিনতাইয়ের উদ্দেশে তাকে ভুট্টা খেতে নিয়ে গিয়ে গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে এবং পাশের বাজারে ৯ হাজার ৫শ’ টাকায় অটোভ্যানটি বিক্রি করে ঢাকায় চলে যায়। গ্রেফতার ব্যক্তিদের আদালতের মাধ্যমে আজ জেলা হাজতে পাঠানো হবে।