ঢাকা ০৯:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বাঘায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। কুড়িগ্রামে ট্রাক চাপায় প্রাণ গেলো ইস্কুল শিক্ষার্থীর শিশু অপহরণ মামলার যাবজ্জীবন আসামি ১৩ বছর পর গ্রেফতার যুগান্তরের ২৫ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠান লালপুরে মেধাবীদের শিক্ষাবৃত্তি ও অসহায় নারীদের সেলাই মেশিন বিতরণ মাদকমুক্ত ইন্দুরকানী গড়তে আমাদের করণীয় শীর্ষক’ আলোচনা সভা রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত ওআইসি সদস্য দেশগুলোর তথ্যমন্ত্রীদের সম্মেলনে যোগ দিতে তুরস্কের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী নড়াইলে হারিয়ে যাওয়া ২০টি মোবাইল আনুষ্ঠানিকভাবে ভুক্তভোগীদের নিকট হস্তান্তর পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব অবহেলা পাঁচ শিক্ষককে অব্যাহতি ও দুই শিক্ষর্থীকে বহিস্কার

রাঙ্গুনিয়ায় চাঞ্চল্যকর মিতু হত্যার আসামি কালু গ্রেফতার

মুবিন বিন সোলাইমান চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ০৯:৪৩:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ জুন ২০২৩ ১১০ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চাঞ্চল্যকর এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামি খাইরুল ইসলাম কালুকে ৮ বছর পর গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

শুক্রবার (২ জুন) রাত ২টার দিকে নগরীর আকবর শাহ থানার ৯নং ওয়ার্ডে বেলতলীঘোনা নামক এলাকা থেকে কালুকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারের পর শনিবার (৩ জুন) সকালে তাকে রাঙ্গুনিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। রাঙ্গুনিয়া থানায় দায়ের করা একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালত পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মিল্কী।

গ্রেপ্তারকৃত খায়রুল ইসলাম কালু রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বদিউদ্দিন তালুকদার বাড়ির মৃত মতিউর রহমানের ছেলে।
পিবিআইয়ের সহকারী পুলিশ সুপার নাঈমা সুলতানা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, আসামি কালু বিভিন্ন ছদ্মবেশ নিয়ে গত ৮ বছর ধরে গ্রেফতার এড়াতে সক্ষম হয়েছিলেন। সর্বশেষ
শুক্রবার (২ জুন) দিবাগত রাত ২টার দিকে চট্টগ্রাম মহানগরীর আকবর শাহ এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই)। তিনি আকবর শাহ এলাকায় একটি ভবনে নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

তিনি আরও বলেন, আসামি কালু চাঞ্চল্যকর সাবেক এসপি পত্নী মিতু হত্যার কিলিং মিশনে অংশ নেওয়া আরেক আসামি মুসার সহযোগী ছিলেন। মোটরসাইকেল থেকে মিতুকে লক্ষ্য করে গুলি করেছিলেন সে। পলাতক কালুকে গ্রেফতারে পরোয়ানার পাশাপাশি বিদেশযাত্রা ঠেকাতে তার পাসপোর্ট জব্দের আদেশ দিয়েছিলেন আদালত।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুব মিল্কী বলেন, কালুর বিরুদ্ধে মিতু হত্যা মামলা ছাড়াও ২০১২ সালে রাঙ্গুনিয়া থানার পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় মামলা রয়েছে। ওই মামলায় পলাতক আসামি ছিলেন কালু।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৫ জুন চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে খুন হন মাহমুদা খানম মিতু। ঘটনার পরদিন জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা দাবি করে বাবুল আক্তার নিজেই বাদী হয়ে নগরীর পাচলাইশ থানায় মামলা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রাঙ্গুনিয়ায় চাঞ্চল্যকর মিতু হত্যার আসামি কালু গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৯:৪৩:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ জুন ২০২৩

চাঞ্চল্যকর এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামি খাইরুল ইসলাম কালুকে ৮ বছর পর গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

শুক্রবার (২ জুন) রাত ২টার দিকে নগরীর আকবর শাহ থানার ৯নং ওয়ার্ডে বেলতলীঘোনা নামক এলাকা থেকে কালুকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারের পর শনিবার (৩ জুন) সকালে তাকে রাঙ্গুনিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। রাঙ্গুনিয়া থানায় দায়ের করা একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালত পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মিল্কী।

গ্রেপ্তারকৃত খায়রুল ইসলাম কালু রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বদিউদ্দিন তালুকদার বাড়ির মৃত মতিউর রহমানের ছেলে।
পিবিআইয়ের সহকারী পুলিশ সুপার নাঈমা সুলতানা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, আসামি কালু বিভিন্ন ছদ্মবেশ নিয়ে গত ৮ বছর ধরে গ্রেফতার এড়াতে সক্ষম হয়েছিলেন। সর্বশেষ
শুক্রবার (২ জুন) দিবাগত রাত ২টার দিকে চট্টগ্রাম মহানগরীর আকবর শাহ এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই)। তিনি আকবর শাহ এলাকায় একটি ভবনে নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

তিনি আরও বলেন, আসামি কালু চাঞ্চল্যকর সাবেক এসপি পত্নী মিতু হত্যার কিলিং মিশনে অংশ নেওয়া আরেক আসামি মুসার সহযোগী ছিলেন। মোটরসাইকেল থেকে মিতুকে লক্ষ্য করে গুলি করেছিলেন সে। পলাতক কালুকে গ্রেফতারে পরোয়ানার পাশাপাশি বিদেশযাত্রা ঠেকাতে তার পাসপোর্ট জব্দের আদেশ দিয়েছিলেন আদালত।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুব মিল্কী বলেন, কালুর বিরুদ্ধে মিতু হত্যা মামলা ছাড়াও ২০১২ সালে রাঙ্গুনিয়া থানার পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় মামলা রয়েছে। ওই মামলায় পলাতক আসামি ছিলেন কালু।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৫ জুন চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার পথে খুন হন মাহমুদা খানম মিতু। ঘটনার পরদিন জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা দাবি করে বাবুল আক্তার নিজেই বাদী হয়ে নগরীর পাচলাইশ থানায় মামলা করেন।