ঢাকা ০৯:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বাঘায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। কুড়িগ্রামে ট্রাক চাপায় প্রাণ গেলো ইস্কুল শিক্ষার্থীর শিশু অপহরণ মামলার যাবজ্জীবন আসামি ১৩ বছর পর গ্রেফতার যুগান্তরের ২৫ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠান লালপুরে মেধাবীদের শিক্ষাবৃত্তি ও অসহায় নারীদের সেলাই মেশিন বিতরণ মাদকমুক্ত ইন্দুরকানী গড়তে আমাদের করণীয় শীর্ষক’ আলোচনা সভা রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত ওআইসি সদস্য দেশগুলোর তথ্যমন্ত্রীদের সম্মেলনে যোগ দিতে তুরস্কের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী নড়াইলে হারিয়ে যাওয়া ২০টি মোবাইল আনুষ্ঠানিকভাবে ভুক্তভোগীদের নিকট হস্তান্তর পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব অবহেলা পাঁচ শিক্ষককে অব্যাহতি ও দুই শিক্ষর্থীকে বহিস্কার

বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে কুড়িগ্রামে মহান স্বাধীনতা দিবস পালন

হীমেল কুমার মিত্র স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৪:১১:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মার্চ ২০২৩ ৯৬ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

২৫ মার্চের মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া হত্যাযজ্ঞের মধ্য থেকে উঠে দাঁড়িয়ে বাঙালি এই দিন থেকে মুক্তিযুদ্ধ ও দেশ স্বাধীন করার শপথ গ্রহণ করে। শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ। ঢাকা ছাড়া সারা দেশে ওড়ে স্বাধীন বাংলার পতাকা। সবুজের জমিনে রক্তিম সূর্য খচিত মানচিত্রের বাংলাদেশের আজ মহান স্বাধীনতা দিবস এবং ৫৩তম জাতীয় দিবস।

আজ (২৬ মার্চ) রবিবার মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে কুড়িগ্রাম জেলা স্টেডিয়ামে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়।

পরবর্তীতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে সকালে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার , কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগের পক্ষ থেকে স্বাধীনতা বিজয় স্তম্ভ ও শহিদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

এককভাবে কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ তাদের দলীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। এবং এরপর কুড়িগ্রাম সদর উপজেলা চেয়ারম্যান, কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু স্বাধীনতা দিবস সম্পর্কে মন্তব্য প্রদান করেছেন। তিনি বলেছেন, আমি প্রথমেই স্মরণ করছি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মোত্সর্গকারী বীর শহীদ, জাতীয় চার নেতা, বীর মুক্তিযুদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সর্মথক এবং সবধরনের জনগণকে কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করছেন। তিনি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু সবসময় বাংলার মানুষের স্বাধীনতার পাশাপাশি একটি সুখী ও সমৃদ্ধ দেশ গড়ার স্বপ্ন দেখতেন। তার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগ সরকার নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এই স্বাধীনতা দিবসে স্বাধীনতার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জনে আমাদের উচিত আওয়ামী লীগ সরকারকে সাহায্য করা, একসাথে কাজ করা। জনমুখী ও টেকসই উন্নয়নে যারা বাঁধা প্রদান করতে চায়, তাদের রুখে দিতে হবে। সুশাসন, সামাজিক ন্যায়বিচার, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের মানুষের কাছে মুক্তির মন্ত্রে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়ার দিন আজ। বেদনাকে প্রতিজ্ঞায় পরিণত করে যুদ্ধের শপথ নেওয়ার দিন এই স্বাধীনতা দিবস। এই স্বাধীনতা দিবসে আমরা সবাই প্রতিজ্ঞা করি বাংলাদেশের উন্নয়নে, আওয়ামী লীগ সরকারের সাথে শরীরের শেষ রক্তবিন্দু দিয়েও থাকবো, অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে যাব।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে,
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কুড়িগ্রাম জেলা শাখা কতৃক স্বাধীনতার পক্ষে জীবন উৎসর্গকারীদের জন্য বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে দোয়া ও প্রার্থনার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। স্বাধীনতা দিবসে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কুড়িগ্রাম জেলা শাখাকে কিভাবে আরো শক্তিশালী করা যায়, সে সম্পর্কে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করছে।

উল্লেখ্য, ৫২ বছর তরুণদের ভাবনায় আগামীর বাংলাদেশ
একাত্তরে স্বাধীনতার পর যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। কিন্তু তার সেই স্বপ্ন ভেঙে চুরমার হয়ে যায়, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বন্ধ থেমে যায় অগ্রগতির চাকা। ষড়যন্ত্রকারীরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে অন্ধকার যুগে টেনে নিতে চেয়েছিল দেশকে। তবে বহু বাধা পেরিয়ে আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা। স্বাধীনতার পর শূন্য থেকে শুরু করা বাংলাদেশের ফিনিক্স পাখির মতো উত্থান হয়েছে সগৌরবে।

বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ ঘটেছে। বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

২০০৮ সালে ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে প্রযুক্তিভিত্তিক সেবা পৌঁছাতে কাজ শুরু করে সরকার। এ ধারাবাহিকতায় আজ প্রত্যন্ত গ্রামেও মিলছে ইন্টারনেট সেবা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে কুড়িগ্রামে মহান স্বাধীনতা দিবস পালন

আপডেট সময় : ০৪:১১:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মার্চ ২০২৩

২৫ মার্চের মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া হত্যাযজ্ঞের মধ্য থেকে উঠে দাঁড়িয়ে বাঙালি এই দিন থেকে মুক্তিযুদ্ধ ও দেশ স্বাধীন করার শপথ গ্রহণ করে। শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ। ঢাকা ছাড়া সারা দেশে ওড়ে স্বাধীন বাংলার পতাকা। সবুজের জমিনে রক্তিম সূর্য খচিত মানচিত্রের বাংলাদেশের আজ মহান স্বাধীনতা দিবস এবং ৫৩তম জাতীয় দিবস।

আজ (২৬ মার্চ) রবিবার মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে কুড়িগ্রাম জেলা স্টেডিয়ামে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়।

পরবর্তীতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে সকালে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার , কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগের পক্ষ থেকে স্বাধীনতা বিজয় স্তম্ভ ও শহিদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

এককভাবে কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ তাদের দলীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। এবং এরপর কুড়িগ্রাম সদর উপজেলা চেয়ারম্যান, কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু স্বাধীনতা দিবস সম্পর্কে মন্তব্য প্রদান করেছেন। তিনি বলেছেন, আমি প্রথমেই স্মরণ করছি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মোত্সর্গকারী বীর শহীদ, জাতীয় চার নেতা, বীর মুক্তিযুদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সর্মথক এবং সবধরনের জনগণকে কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করছেন। তিনি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু সবসময় বাংলার মানুষের স্বাধীনতার পাশাপাশি একটি সুখী ও সমৃদ্ধ দেশ গড়ার স্বপ্ন দেখতেন। তার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগ সরকার নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এই স্বাধীনতা দিবসে স্বাধীনতার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জনে আমাদের উচিত আওয়ামী লীগ সরকারকে সাহায্য করা, একসাথে কাজ করা। জনমুখী ও টেকসই উন্নয়নে যারা বাঁধা প্রদান করতে চায়, তাদের রুখে দিতে হবে। সুশাসন, সামাজিক ন্যায়বিচার, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের মানুষের কাছে মুক্তির মন্ত্রে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়ার দিন আজ। বেদনাকে প্রতিজ্ঞায় পরিণত করে যুদ্ধের শপথ নেওয়ার দিন এই স্বাধীনতা দিবস। এই স্বাধীনতা দিবসে আমরা সবাই প্রতিজ্ঞা করি বাংলাদেশের উন্নয়নে, আওয়ামী লীগ সরকারের সাথে শরীরের শেষ রক্তবিন্দু দিয়েও থাকবো, অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে যাব।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে,
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কুড়িগ্রাম জেলা শাখা কতৃক স্বাধীনতার পক্ষে জীবন উৎসর্গকারীদের জন্য বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে দোয়া ও প্রার্থনার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। স্বাধীনতা দিবসে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কুড়িগ্রাম জেলা শাখাকে কিভাবে আরো শক্তিশালী করা যায়, সে সম্পর্কে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করছে।

উল্লেখ্য, ৫২ বছর তরুণদের ভাবনায় আগামীর বাংলাদেশ
একাত্তরে স্বাধীনতার পর যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। কিন্তু তার সেই স্বপ্ন ভেঙে চুরমার হয়ে যায়, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বন্ধ থেমে যায় অগ্রগতির চাকা। ষড়যন্ত্রকারীরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে অন্ধকার যুগে টেনে নিতে চেয়েছিল দেশকে। তবে বহু বাধা পেরিয়ে আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা। স্বাধীনতার পর শূন্য থেকে শুরু করা বাংলাদেশের ফিনিক্স পাখির মতো উত্থান হয়েছে সগৌরবে।

বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ ঘটেছে। বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

২০০৮ সালে ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে প্রযুক্তিভিত্তিক সেবা পৌঁছাতে কাজ শুরু করে সরকার। এ ধারাবাহিকতায় আজ প্রত্যন্ত গ্রামেও মিলছে ইন্টারনেট সেবা।