ঢাকা ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
শিশু অপহরণ মামলার যাবজ্জীবন আসামি ১৩ বছর পর গ্রেফতার যুগান্তরের ২৫ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠান লালপুরে মেধাবীদের শিক্ষাবৃত্তি ও অসহায় নারীদের সেলাই মেশিন বিতরণ মাদকমুক্ত ইন্দুরকানী গড়তে আমাদের করণীয় শীর্ষক’ আলোচনা সভা রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত ওআইসি সদস্য দেশগুলোর তথ্যমন্ত্রীদের সম্মেলনে যোগ দিতে তুরস্কের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী নড়াইলে হারিয়ে যাওয়া ২০টি মোবাইল আনুষ্ঠানিকভাবে ভুক্তভোগীদের নিকট হস্তান্তর পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব অবহেলা পাঁচ শিক্ষককে অব্যাহতি ও দুই শিক্ষর্থীকে বহিস্কার ইসদাইরে অবৈধ ক্যাবল ব্যবসাায়ী বহিস্কৃত যুবলীগ নেতার ফারুক আহমেদ শিমুল ও মনিরুজ্জামান ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, অফিস সীলগালা লালপুরে বিএনপির চার নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত

বগুড়ায় শিবগঞ্জ সাবেক মহিলা ইউপি সদস্য হত্যার ২৪ ঘন্টার মধ্যে দুই যুবক গ্রেফতার।

মোঃ জান্নাতুল নাঈম, বগুড়া শিবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ১০:৩২:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ৭৭ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বগুড়ায় শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউপির সাবেক ইউপি সদস্য নারগিছ আরা বেগমকে হত্যার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা গেছে গ্রেফতারকৃতরা হলেন নিহত নারগিছের ছেলের বন্ধু। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের মধ্যপাড়া এলাকার মোঃ মিলন মিয়ার ছেলে মোঃ মুন্না মিয়া (২২) এবং পশ্চিম পাড়া এলাকার মোঃ খালেদ হাসান (২২)। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব বিষয় নিশ্চিত করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আব্দুর রশিদ।

জানা গেছে, রোববার বিকেলে নিজ শয়নকক্ষ থেকে সাবেক নারী ইউপি সদস্য নারগিছ আরা বেগমের মরদেহ উদ্ধারের পর থেকেই পুলিশ তদন্ত শুরু করে। তদন্তের এক পর্যায়ে পুলিশ জানতে পারে নারগিছ আরা রোববার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে রায়নগর মধ্যপাড়ার বাড়িতে আসার কিছুক্ষণ পরেই মুন্না ওই বাড়িতে প্রবেশ করে। এরপর স্থানীয়দের মাধ্যমে খালেদ ও মুন্নাকে ওই বাড়ির সামনে ঘোরাফেরার বিষয়টি জানতে পারে পুলিশ।

এই সূত্র ধরে রাত ১টার দিকে বাসা থেকে আটক করে খালেদকে এবং তার তথ্যের উপর ভিত্তি করে মুন্নাকে রাত ৩টার দিকে মাটিডালী এলাকা থেকে আটক করে বগুড়া সদরের পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের মাধ্যমে জানতে পারেন বাড়ির সামনে পাহারায় ছিলেন খালেদ।
অপরদিকে মুন্না নারগিছকে ধারালো ছুরি দিয়ে গলায়, পিঠে ও মাথায় কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যান।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রশিদ জানান, পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মুন্না নারগিছ বেগমকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছে। আর এ কাজে খালেদ তাকে সাহায্য করে। তাদের দেখানো তথ্যের ভিত্তিতে নিহতের বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ের ঝোপ থেকে রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় গ্রেফতারকৃতরা হলেন আসামিরা নিহত নারগিছের ছেলে আজিজুলের বন্ধু। তারা একসাথে মাদকসেবনে করতেন। এর মাঝে নারগিছের ছেলে আজিজুল বর্তমানে বগুড়া শহরের একটি নিরাময়কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন আছেন। আমাদের প্রাথমিক ধারণা ছেলে আজিজুলের সঙ্গে মাদক বা অন্য কোনো দ্বন্দ্ব নিয়ে নারগিছকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে বাদী হয়ে মামলা করবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বগুড়ায় শিবগঞ্জ সাবেক মহিলা ইউপি সদস্য হত্যার ২৪ ঘন্টার মধ্যে দুই যুবক গ্রেফতার।

আপডেট সময় : ১০:৩২:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বগুড়ায় শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউপির সাবেক ইউপি সদস্য নারগিছ আরা বেগমকে হত্যার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা গেছে গ্রেফতারকৃতরা হলেন নিহত নারগিছের ছেলের বন্ধু। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের মধ্যপাড়া এলাকার মোঃ মিলন মিয়ার ছেলে মোঃ মুন্না মিয়া (২২) এবং পশ্চিম পাড়া এলাকার মোঃ খালেদ হাসান (২২)। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব বিষয় নিশ্চিত করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আব্দুর রশিদ।

জানা গেছে, রোববার বিকেলে নিজ শয়নকক্ষ থেকে সাবেক নারী ইউপি সদস্য নারগিছ আরা বেগমের মরদেহ উদ্ধারের পর থেকেই পুলিশ তদন্ত শুরু করে। তদন্তের এক পর্যায়ে পুলিশ জানতে পারে নারগিছ আরা রোববার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে রায়নগর মধ্যপাড়ার বাড়িতে আসার কিছুক্ষণ পরেই মুন্না ওই বাড়িতে প্রবেশ করে। এরপর স্থানীয়দের মাধ্যমে খালেদ ও মুন্নাকে ওই বাড়ির সামনে ঘোরাফেরার বিষয়টি জানতে পারে পুলিশ।

এই সূত্র ধরে রাত ১টার দিকে বাসা থেকে আটক করে খালেদকে এবং তার তথ্যের উপর ভিত্তি করে মুন্নাকে রাত ৩টার দিকে মাটিডালী এলাকা থেকে আটক করে বগুড়া সদরের পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের মাধ্যমে জানতে পারেন বাড়ির সামনে পাহারায় ছিলেন খালেদ।
অপরদিকে মুন্না নারগিছকে ধারালো ছুরি দিয়ে গলায়, পিঠে ও মাথায় কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যান।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রশিদ জানান, পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মুন্না নারগিছ বেগমকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছে। আর এ কাজে খালেদ তাকে সাহায্য করে। তাদের দেখানো তথ্যের ভিত্তিতে নিহতের বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ের ঝোপ থেকে রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় গ্রেফতারকৃতরা হলেন আসামিরা নিহত নারগিছের ছেলে আজিজুলের বন্ধু। তারা একসাথে মাদকসেবনে করতেন। এর মাঝে নারগিছের ছেলে আজিজুল বর্তমানে বগুড়া শহরের একটি নিরাময়কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন আছেন। আমাদের প্রাথমিক ধারণা ছেলে আজিজুলের সঙ্গে মাদক বা অন্য কোনো দ্বন্দ্ব নিয়ে নারগিছকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে বাদী হয়ে মামলা করবেন।