ঢাকা ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
শিশু অপহরণ মামলার যাবজ্জীবন আসামি ১৩ বছর পর গ্রেফতার যুগান্তরের ২৫ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠান লালপুরে মেধাবীদের শিক্ষাবৃত্তি ও অসহায় নারীদের সেলাই মেশিন বিতরণ মাদকমুক্ত ইন্দুরকানী গড়তে আমাদের করণীয় শীর্ষক’ আলোচনা সভা রিয়াদে Dxnএর আয়োজনে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন ও সেমিনার অনুষ্ঠিত ওআইসি সদস্য দেশগুলোর তথ্যমন্ত্রীদের সম্মেলনে যোগ দিতে তুরস্কের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী নড়াইলে হারিয়ে যাওয়া ২০টি মোবাইল আনুষ্ঠানিকভাবে ভুক্তভোগীদের নিকট হস্তান্তর পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব অবহেলা পাঁচ শিক্ষককে অব্যাহতি ও দুই শিক্ষর্থীকে বহিস্কার ইসদাইরে অবৈধ ক্যাবল ব্যবসাায়ী বহিস্কৃত যুবলীগ নেতার ফারুক আহমেদ শিমুল ও মনিরুজ্জামান ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, অফিস সীলগালা লালপুরে বিএনপির চার নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত

প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত স্বামী,রাজ মিস্ত্রী কাজ করে সংসারের হাল ধরলেন স্ত্রী

আবু হাসান আপন নবীনগর ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১০:৪৮:২২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩ ১৪১ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলা শিবপুর ইউনিয়ন শিবপুর গ্রামের মোঃ কামাল মিয়া দীর্ঘ ৯ বছর ধরে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত।স্বামী অসুস্থ হওয়ার পর রাজ মিস্ত্রী কাজ করে সংসারের হাল ধরলেন স্ত্রী লিপি বেগম।

স্থানীয় লোকেরা বলেন,মোঃ কামাল হোসেন সুস্থ্য সবল ছিলেন। আজ থেকে নয় বছর পূর্বে প রোগে আক্রান্ত হয়ে স্বাভাবিক ভাবে চলতে পারে না।এক বছর চিকিৎসা করানোর পর অর্থের অভাবে আর চিকিৎসা করাতে পারেনি তার পরিবার।কামাল হোসেন এর দুই মেয়ে।স্ত্রী লিপি বেগম রাজমিস্ত্রী কাজ করে দুই মেয়ে ও স্বামী কে নিয়ে সংসারের হাল ধরলেন।এক মেয়ে কে বিয়ে দিয়েছে আশেপাশের বৃত্তভানদের সহযোগিতায়।রাজ মিস্ত্রী কাজ করে যে টাকা উপার্জন করে তা দিয়ে সংসার চালিয়ে স্বামীর চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে না।সমাজের বৃত্তভান ব্যাক্তিরা পরিবারটির পাশে দাড়াঁনোর জন্য আহবান করছি।

কামাল হোসেন এর স্ত্রী লিপি বেগম বলেন,আমার পরিবারের এক মাত্র ভরসা ছিল আমার স্বামী।প্রতিদিন যে টাকা উপার্জন করত তা দিয়ে আমাদের সংসার চলত। ৯ বছর পূর্বে হঠাৎ আমার স্বামী প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়।এর পর থেকে কথা বলতে পারে না,স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করতে পারে না।এক বছর চিকিৎসা করানোর পর আর চিকিৎসা করাতে পারি নাই অর্থের অভাবে।আমার স্বামী অসুস্থ হওয়ার পর পরিবারের হাল ধরার মত কেউ ছিলনা,আমি রাজ মিস্ত্রী কাজ করে সংসার এর হাল ধরেছি।আশেপাশের লোকদের সহযোগিতায় এক টি মেয়ে বিবাহ দেয়।বর্তমানে রাজ মিস্ত্রী কাজ করে যে টাকা উপার্জন করি তা দিয়ে কোন রকমে সংসার চলে,তাই আমার স্বামীর চিকিৎসা করাতে পারছিনা।সমাজের বৃত্তভান ব্যাক্তি সহ সরকারের কাছ থেকে আমার পরিবারের জন্য সহযোগিতা কামনা করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত স্বামী,রাজ মিস্ত্রী কাজ করে সংসারের হাল ধরলেন স্ত্রী

আপডেট সময় : ১০:৪৮:২২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলা শিবপুর ইউনিয়ন শিবপুর গ্রামের মোঃ কামাল মিয়া দীর্ঘ ৯ বছর ধরে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত।স্বামী অসুস্থ হওয়ার পর রাজ মিস্ত্রী কাজ করে সংসারের হাল ধরলেন স্ত্রী লিপি বেগম।

স্থানীয় লোকেরা বলেন,মোঃ কামাল হোসেন সুস্থ্য সবল ছিলেন। আজ থেকে নয় বছর পূর্বে প রোগে আক্রান্ত হয়ে স্বাভাবিক ভাবে চলতে পারে না।এক বছর চিকিৎসা করানোর পর অর্থের অভাবে আর চিকিৎসা করাতে পারেনি তার পরিবার।কামাল হোসেন এর দুই মেয়ে।স্ত্রী লিপি বেগম রাজমিস্ত্রী কাজ করে দুই মেয়ে ও স্বামী কে নিয়ে সংসারের হাল ধরলেন।এক মেয়ে কে বিয়ে দিয়েছে আশেপাশের বৃত্তভানদের সহযোগিতায়।রাজ মিস্ত্রী কাজ করে যে টাকা উপার্জন করে তা দিয়ে সংসার চালিয়ে স্বামীর চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে না।সমাজের বৃত্তভান ব্যাক্তিরা পরিবারটির পাশে দাড়াঁনোর জন্য আহবান করছি।

কামাল হোসেন এর স্ত্রী লিপি বেগম বলেন,আমার পরিবারের এক মাত্র ভরসা ছিল আমার স্বামী।প্রতিদিন যে টাকা উপার্জন করত তা দিয়ে আমাদের সংসার চলত। ৯ বছর পূর্বে হঠাৎ আমার স্বামী প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়।এর পর থেকে কথা বলতে পারে না,স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করতে পারে না।এক বছর চিকিৎসা করানোর পর আর চিকিৎসা করাতে পারি নাই অর্থের অভাবে।আমার স্বামী অসুস্থ হওয়ার পর পরিবারের হাল ধরার মত কেউ ছিলনা,আমি রাজ মিস্ত্রী কাজ করে সংসার এর হাল ধরেছি।আশেপাশের লোকদের সহযোগিতায় এক টি মেয়ে বিবাহ দেয়।বর্তমানে রাজ মিস্ত্রী কাজ করে যে টাকা উপার্জন করি তা দিয়ে কোন রকমে সংসার চলে,তাই আমার স্বামীর চিকিৎসা করাতে পারছিনা।সমাজের বৃত্তভান ব্যাক্তি সহ সরকারের কাছ থেকে আমার পরিবারের জন্য সহযোগিতা কামনা করছি।