ঢাকা ০১:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রবাস জীবন হে ফাগুন দানিয়াল হত্যা মামলার প্রধান আসামী অনিক গ্রেফতার দেশের অন্যতম চরমোনাইর ফাল্গুনের ৩ দিনব্যাপী বাৎসরিক মাহফিল শুরু বুধবার নড়াইলে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার নারায়ণগঞ্জের অস্ত্রের কারখানার সন্ধান পেয়েছে ডিবি রাজারহাট উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে ২১শে ফেব্রুয়ারি’র প্রথম প্রহরে পুষ্পার্ঘ অর্পণ রক্তে কেনা ভাষায় হিন্দুত্ববাদী সাংস্কৃতিক আগ্রাসন রুখে দিতে হবে: ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর উত্তর নড়াইলে সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গে লাখো প্রদীপ জ্বালিয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ নকলায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

পিরোজপুরে কৃষি কর্মকর্তাসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা, কৃষি যন্ত্র (কম্বাইন হারভেস্টার) মেশিন বিতরণে অনিয়ম

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ১০:১১:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ মে ২০২৩ ১৬৯ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ৩ লাখ টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা নিয়েছেন। কৃষি যন্ত্র (কম্বাইন হারভেস্টার) মেশিন এর চাবি আনুষ্ঠানিক ভাবে তুলে দিয়ে ফটোসেশনও করা হয়েছে।

মেশিং নষ্ট, সার্ভিসিং করে দেয়া হবে, কিন্তু মেশিং না দিয়ে হুমকি ও হয়রানী করে সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

এমন অভিযাগে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ২৯ মে সোমবার মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট আদালতে মামলা (এমপি— ৫২৭/২৩) করেন মোঃ বাবুল তালুকদার (৫০) নামে এক প্রান্তিক কৃষক। তিনি উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামের মৃত. মোঃ আমজেদ আলী তালুকদারের ছেলে। মামলার অন্যান্য আসামীরা হলেন— কৃষি যন্ত্র (কম্বাইন হারভেস্টার) মেশিন আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান “বাংলা মার্ক গ্রুপ” এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিরাজুল ইসলাম, বরিশাল জোনাল অফিসার কাজী ফরহাদ হাসেন, প্রকৌশলী সুজন ও মার্কেটিং অফিসার ইদে আমীন। বাদীপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন পিরোজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য বিজ্ঞ আইনজীবী মোঃ ইমাম হোসেন জমাদ্দার টুটুল

আদালতের বিজ্ঞ বিচারিক হাকিম মোঃ কামরুল আজাদ মামলাটি আমলে নিয়ে পিরোজপুর জেলা কৃষি কর্মকর্তাকে আগামী ২৭ জুনের মধ্যে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন।

গন মাধ্যমকে আইনজীবী ইমাম হোসেন টুটুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে “বাংলা মার্ক গ্রুপ” এর বরিশাল জোনাল অফিসার কাজী ফরহাদ হোসেন বলেন, টাকা আত্মসাৎ করার কোন সুযোগ নেই। মেশিং সার্ভিসিং করে দেয়ার কথা থাকলে আমরা সার্ভিসিং করে তাকে (বাবুল তালুকদার) ফেরৎ দেয়া হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযাগ অস্বীকার করে বলেন, প্রান্তিক কৃষক ও আমদানীকারক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের সাথে চুক্তিপত্র বা অর্থনৈতিক লেনদেন থাকে। আমি সরকারি কর্মচারী হিসবে মধ্যস্ততাকারী মাত্র। এখানে আমার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পিরোজপুরে কৃষি কর্মকর্তাসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা, কৃষি যন্ত্র (কম্বাইন হারভেস্টার) মেশিন বিতরণে অনিয়ম

আপডেট সময় : ১০:১১:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ মে ২০২৩

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ৩ লাখ টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা নিয়েছেন। কৃষি যন্ত্র (কম্বাইন হারভেস্টার) মেশিন এর চাবি আনুষ্ঠানিক ভাবে তুলে দিয়ে ফটোসেশনও করা হয়েছে।

মেশিং নষ্ট, সার্ভিসিং করে দেয়া হবে, কিন্তু মেশিং না দিয়ে হুমকি ও হয়রানী করে সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

এমন অভিযাগে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ২৯ মে সোমবার মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট আদালতে মামলা (এমপি— ৫২৭/২৩) করেন মোঃ বাবুল তালুকদার (৫০) নামে এক প্রান্তিক কৃষক। তিনি উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামের মৃত. মোঃ আমজেদ আলী তালুকদারের ছেলে। মামলার অন্যান্য আসামীরা হলেন— কৃষি যন্ত্র (কম্বাইন হারভেস্টার) মেশিন আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান “বাংলা মার্ক গ্রুপ” এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিরাজুল ইসলাম, বরিশাল জোনাল অফিসার কাজী ফরহাদ হাসেন, প্রকৌশলী সুজন ও মার্কেটিং অফিসার ইদে আমীন। বাদীপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন পিরোজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য বিজ্ঞ আইনজীবী মোঃ ইমাম হোসেন জমাদ্দার টুটুল

আদালতের বিজ্ঞ বিচারিক হাকিম মোঃ কামরুল আজাদ মামলাটি আমলে নিয়ে পিরোজপুর জেলা কৃষি কর্মকর্তাকে আগামী ২৭ জুনের মধ্যে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন।

গন মাধ্যমকে আইনজীবী ইমাম হোসেন টুটুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে “বাংলা মার্ক গ্রুপ” এর বরিশাল জোনাল অফিসার কাজী ফরহাদ হোসেন বলেন, টাকা আত্মসাৎ করার কোন সুযোগ নেই। মেশিং সার্ভিসিং করে দেয়ার কথা থাকলে আমরা সার্ভিসিং করে তাকে (বাবুল তালুকদার) ফেরৎ দেয়া হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযাগ অস্বীকার করে বলেন, প্রান্তিক কৃষক ও আমদানীকারক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের সাথে চুক্তিপত্র বা অর্থনৈতিক লেনদেন থাকে। আমি সরকারি কর্মচারী হিসবে মধ্যস্ততাকারী মাত্র। এখানে আমার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই।