ঢাকা ১২:২৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
হে ফাগুন দানিয়াল হত্যা মামলার প্রধান আসামী অনিক গ্রেফতার দেশের অন্যতম চরমোনাইর ফাল্গুনের ৩ দিনব্যাপী বাৎসরিক মাহফিল শুরু বুধবার নড়াইলে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার নারায়ণগঞ্জের অস্ত্রের কারখানার সন্ধান পেয়েছে ডিবি রাজারহাট উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে ২১শে ফেব্রুয়ারি’র প্রথম প্রহরে পুষ্পার্ঘ অর্পণ রক্তে কেনা ভাষায় হিন্দুত্ববাদী সাংস্কৃতিক আগ্রাসন রুখে দিতে হবে: ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর উত্তর নড়াইলে সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গে লাখো প্রদীপ জ্বালিয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ নকলায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল যুবলীগ নেতার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী গ্রেফতার

পবিপ্রবি’র দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

পবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ১০:২৫:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩ ১৮৫ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি ও প্রো. ভিসি কার্যালয়ের এপিএস মোঃ রাসেলের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডল ।

২৩-০৫-২০২৩( মঙ্গলবার) দুমকী থানায় পবিপ্রবি’র অফিসার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি বিরুদ্ধে গালমন্দ ও প্রো. ভিসি কার্যালয়ের এপিএস মোঃ রাসেলের বিরুদ্ধে খুন করার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করে সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং ৯৬৫) ও শিক্ষক সমিতির কাছে সহায়তা কামনা করেছেন মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডলকে।

উল্লেখ্য, মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডল পবিপ্রবি’র শিক্ষক সমিতির নির্বাচন-২০২৩ এর সভাপতি প্রার্থী। তিনি আওয়ামিলীগ পন্থী একজন শিক্ষক।

এবিষয়ে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে অফিসার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,” অভিযোগকারী শিক্ষক সকল অফিসারদের দালাল বলেছেন বলে অফিসাররা অভিযোগ করেন। যা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। এই অভিযোগের সত্যতা জানার জন্যই আমি তাকে ফোন করি। ”

এ বিষয়ে অভিযোগকারী সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডল বলেন, “বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের অভিজ্ঞতা নিয়ে চাকুরী প্রাপ্তদের পদোন্নতি ও পেনশনের অফিস আদেশর হস্তক্ষেপ করি এবং ২০০২ সাল থেকে মার্চ ২০২৩ পর্যন্ত সকল অনিয়মের প্রতিকার চাই। এজন্যই ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি ও প্রো. ভিসি কার্যালয়ের এপিএস মোঃ রাসেল মুঠোফোনে আমাকে গালমন্দ ও হত্যার হুমকি দেন। ”

দুমকী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল বাশার বলেন,” আমরা অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগ খতিয়ে দেখা হবে, সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ”

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. সন্তোষ কুমার বসুর সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সাড়া পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পবিপ্রবি’র দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় : ১০:২৫:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি ও প্রো. ভিসি কার্যালয়ের এপিএস মোঃ রাসেলের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডল ।

২৩-০৫-২০২৩( মঙ্গলবার) দুমকী থানায় পবিপ্রবি’র অফিসার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি বিরুদ্ধে গালমন্দ ও প্রো. ভিসি কার্যালয়ের এপিএস মোঃ রাসেলের বিরুদ্ধে খুন করার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করে সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং ৯৬৫) ও শিক্ষক সমিতির কাছে সহায়তা কামনা করেছেন মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডলকে।

উল্লেখ্য, মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডল পবিপ্রবি’র শিক্ষক সমিতির নির্বাচন-২০২৩ এর সভাপতি প্রার্থী। তিনি আওয়ামিলীগ পন্থী একজন শিক্ষক।

এবিষয়ে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে অফিসার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,” অভিযোগকারী শিক্ষক সকল অফিসারদের দালাল বলেছেন বলে অফিসাররা অভিযোগ করেন। যা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। এই অভিযোগের সত্যতা জানার জন্যই আমি তাকে ফোন করি। ”

এ বিষয়ে অভিযোগকারী সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন মন্ডল বলেন, “বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের অভিজ্ঞতা নিয়ে চাকুরী প্রাপ্তদের পদোন্নতি ও পেনশনের অফিস আদেশর হস্তক্ষেপ করি এবং ২০০২ সাল থেকে মার্চ ২০২৩ পর্যন্ত সকল অনিয়মের প্রতিকার চাই। এজন্যই ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ ওয়াজকুরুনি ও প্রো. ভিসি কার্যালয়ের এপিএস মোঃ রাসেল মুঠোফোনে আমাকে গালমন্দ ও হত্যার হুমকি দেন। ”

দুমকী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল বাশার বলেন,” আমরা অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগ খতিয়ে দেখা হবে, সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ”

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. সন্তোষ কুমার বসুর সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সাড়া পাওয়া যায়নি।