ঢাকা ০৫:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বিকাশ বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড সাব্বিরসহ আটক ৫ তিন দিন ব্যাপী আক্কেলপুরে কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন নড়াইলে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ দু’জনের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর পাটখেত থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার, কিশোরকে জিজ্ঞাসাবাদ খোকসায় গড়াই নদীতে গোসল করতে নেমে স্কুল ছাত্র নিখোঁজ মানুষিক ভারসাম্যহীন পুলিশ সদস্য গুলি করে সহকর্মীকে মামলা তুলে না নেওয়ায় কিশোর গ্যাং লিডার বরিশ্যাইল্লা শান্ত বাহিনীর হামলায় যুবক হত্যা চেষ্টা থানায় অভিযোগ। রংপুর সুখি সমৃদ্ধি উন্নত স্মার্ট রংপুরে পরিনত হবে: জেলা প্রশাসক নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের পরিচয়পর্ব সভা অনুষ্ঠিত নওগাঁর নিয়ামতপুর হতে ১০১ কেজি গাঁজাসহ আটক ২

নগরীতে মণ্ডপে মণ্ডপে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দুর্গাপূজা

হীমেল কুমার মিত্র স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট সময় : ০৮:২৩:৫০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩ ৫৭ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

হীমেল কুমার মিত্র স্টাফ রিপোর্টারঃ

রংপুর মহানগরীসহ জেলায় যথাযথ আনুষ্ঠানিকতা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে নবমী বিহীত পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

(২৪ অক্টোবর) মঙ্গলবার বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হল সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় উৎসব।
নগরীতে সকাল থেকে পূষ্পাঞ্জলির মাধ্যমে শুরু হয় দেবী দুর্গা পূজার আনুষ্ঠানিকতা। রংপুর মহানগরী ও জেলার সকল মন্দির-মন্ডপে পূজা-অর্চনা, ভক্তিমূলক সংগীতানুষ্ঠান, প্রসাদ বিতরণ, আরতি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মা দুর্গা দেবীর আগমন পূর্বাহ্নের মধ্যে নবমী বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এর মাধ্যমে রংপুর নগরীর পরেশনাথ মন্দির, গুপ্তপাড়া মন্দিও, শ্রী শ্রী করুণাময়ী কালীমন্দির, সেনপাড়া মন্দির, ক্ষত্রিয় সমিতি মন্দির, দাস পাড়া মন্দিরসহ রংপুরের বিভিন্ন উপজেলায় অত্যন্ত উৎসাহ–উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজা মহানবমী পালিত হয়েছে।

সোমবার (২৩ অক্টোবর) সকালে থেকে বিহিত পূজার মাধ্যমে মহানবমী অনুষ্ঠান শুরু এবং  মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর)

এবার রংপুর মহানগরীর ১৫৭টি ও জেলার আট উপজেলায় ৮০৬টি মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানাগেছে। দুর্গা পূজা নির্বিঘ্ন ও শান্তিপূর্ণ করতে প্রতিটি মণ্ডপে কঠোর নিরাত্তার ব্যবস্থা নিয়েছেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

এদিকে সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে আইন-শৃংঙ্খলা নিয়ন্ত্রণসহ সার্বিক বিষয়ে রংপুর জেলা প্রশাসন, মেট্রোপলিটন ও জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রস্তুুতি নেয়া হয়েছিল। যে কোন অপ্রীতিকর পরিস্তিতি এড়াতে মন্ডপে পুলিশ, আনসার বাহিনী ও গ্রাম পুলিশের সদস্যরাও ছিলেন । এছাড়াও সাদা পোষাকধারি আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মাঠে কাজ করেছেন । বেশ কিছু মন্ডপে সিসি ক্যামেরাও স্থাপন করা হয়েছিল ।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ রংপুর জেলার সভাপতি সুশান্ত ভৌমিক জানান, এ বছর রংপুর মহানগর ও জেলায় ৯৬৩টি মন্ডপে দূর্গাপুজা অনুষ্ঠিত হয়েছে । উৎসব মূখর পরিবেশে শারদীয় উৎসব পালন করা হয়েছে। প্রশাসনের সাথে সম্বন্বয় করে পূজা মন্ডপে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ রংপুর জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি ধীমাণ ভট্টাচার্য বলেন, মহাষষ্ঠী দিয়ে শুরু হয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠান  নবম- দশমী দিয়ে শেষ হবে,যে পূজা করব আমরা দেবী বিল্ববৃক্ষে এসেছেন, এটাই কল্পারম্ভ বোধন এবং অধিবাসের মধ্য দিয়ে দেবীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সব প্রতিকূলতায় তিনি যেন আমাদের শক্তি জোগান।

আয়োজকরা জানান, ভক্তদের কষ্ট দূর করতে চলতি বছর দেবী দুর্গা এসেছেন ঘোড়ায় চড়ে, আর বিজয়া দশমীর দিন একই বাহনে মর্ত্যলোক ছেড়ে কৈলাসে চলে যাবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নগরীতে মণ্ডপে মণ্ডপে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দুর্গাপূজা

আপডেট সময় : ০৮:২৩:৫০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩

হীমেল কুমার মিত্র স্টাফ রিপোর্টারঃ

রংপুর মহানগরীসহ জেলায় যথাযথ আনুষ্ঠানিকতা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে নবমী বিহীত পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

(২৪ অক্টোবর) মঙ্গলবার বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হল সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় উৎসব।
নগরীতে সকাল থেকে পূষ্পাঞ্জলির মাধ্যমে শুরু হয় দেবী দুর্গা পূজার আনুষ্ঠানিকতা। রংপুর মহানগরী ও জেলার সকল মন্দির-মন্ডপে পূজা-অর্চনা, ভক্তিমূলক সংগীতানুষ্ঠান, প্রসাদ বিতরণ, আরতি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মা দুর্গা দেবীর আগমন পূর্বাহ্নের মধ্যে নবমী বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এর মাধ্যমে রংপুর নগরীর পরেশনাথ মন্দির, গুপ্তপাড়া মন্দিও, শ্রী শ্রী করুণাময়ী কালীমন্দির, সেনপাড়া মন্দির, ক্ষত্রিয় সমিতি মন্দির, দাস পাড়া মন্দিরসহ রংপুরের বিভিন্ন উপজেলায় অত্যন্ত উৎসাহ–উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজা মহানবমী পালিত হয়েছে।

সোমবার (২৩ অক্টোবর) সকালে থেকে বিহিত পূজার মাধ্যমে মহানবমী অনুষ্ঠান শুরু এবং  মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর)

এবার রংপুর মহানগরীর ১৫৭টি ও জেলার আট উপজেলায় ৮০৬টি মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানাগেছে। দুর্গা পূজা নির্বিঘ্ন ও শান্তিপূর্ণ করতে প্রতিটি মণ্ডপে কঠোর নিরাত্তার ব্যবস্থা নিয়েছেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

এদিকে সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে আইন-শৃংঙ্খলা নিয়ন্ত্রণসহ সার্বিক বিষয়ে রংপুর জেলা প্রশাসন, মেট্রোপলিটন ও জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রস্তুুতি নেয়া হয়েছিল। যে কোন অপ্রীতিকর পরিস্তিতি এড়াতে মন্ডপে পুলিশ, আনসার বাহিনী ও গ্রাম পুলিশের সদস্যরাও ছিলেন । এছাড়াও সাদা পোষাকধারি আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মাঠে কাজ করেছেন । বেশ কিছু মন্ডপে সিসি ক্যামেরাও স্থাপন করা হয়েছিল ।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ রংপুর জেলার সভাপতি সুশান্ত ভৌমিক জানান, এ বছর রংপুর মহানগর ও জেলায় ৯৬৩টি মন্ডপে দূর্গাপুজা অনুষ্ঠিত হয়েছে । উৎসব মূখর পরিবেশে শারদীয় উৎসব পালন করা হয়েছে। প্রশাসনের সাথে সম্বন্বয় করে পূজা মন্ডপে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ রংপুর জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি ধীমাণ ভট্টাচার্য বলেন, মহাষষ্ঠী দিয়ে শুরু হয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠান  নবম- দশমী দিয়ে শেষ হবে,যে পূজা করব আমরা দেবী বিল্ববৃক্ষে এসেছেন, এটাই কল্পারম্ভ বোধন এবং অধিবাসের মধ্য দিয়ে দেবীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সব প্রতিকূলতায় তিনি যেন আমাদের শক্তি জোগান।

আয়োজকরা জানান, ভক্তদের কষ্ট দূর করতে চলতি বছর দেবী দুর্গা এসেছেন ঘোড়ায় চড়ে, আর বিজয়া দশমীর দিন একই বাহনে মর্ত্যলোক ছেড়ে কৈলাসে চলে যাবেন।