ঢাকা ০১:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
নড়াইলে ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার বেইলি রোডের আগুন নিয়ন্ত্রণে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছেন র‍্যাব-৩ নাটোরের লালপুর তাফসীর মাহফিলে খৃষ্টান যুবকের ইসলাম ধর্ম গ্রহন নারায়ণগঞ্জ  শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বইমেলায় কবিদের উত্তরীয় দিয়ে বরণ কুড়িগ্রামে ৫.১ কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার কৃষক হত্যা মামলায় জয়পুরহাটে ৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড কুড়িগ্রামের উলিপুরে রাস্তা পাকা করন কাজের উদ্বোধন গাজীপুরে মাদ্রাসার সুপার ও সভাপতির দূর্ণীতি, অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন নড়াইলের শান্তা সেনের মেডেকেল শিক্ষা জীবন সম্পন্ন করতে দারিদ্র বাবা-মায়ের দুঃশিন্তা নড়াইলে শিশু নুসরাত হত্যার রহস্য উদঘাটন ঘাতক সৎ মা গ্রেফতার

খোকসায় ঐতিহ্যবাহী মেলার নামে চলছে অশ্লীল নৃত্য- জুয়া, প্রশাসন নিরব 

স্টাফ রিপোর্টার 
  • আপডেট সময় : ১২:৩৫:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৩৪ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্টাফ রিপোর্টার 

কুষ্টিয়ার খোকসায় ঐতিহ্যবাহী কালীপূজা ও গ্রামীণ মেলা শুরু হয়েছে নয় ফেব্রুয়ারী থেকে। প্রথম দিন থেকেই মেলার নামে চলছে জুয়া ও অশ্লীল নৃত্য। মেলায় জুয়া ও অশ্লীল নৃত্যর বিষয়টি অস্বীকার করে খোকসা থানার ওসি ভিডিও দেখিয়ে প্রমাণ করতে বলেন সাংবাদিকদের।

১০’ ফেব্রুয়ারী শনিবার রাতে সরেজমিনে মেলায় গিয়ে দেখা যায়, মেলার প্রধান দরজায় পুলিশ। দরজার অদুরে বসেছে জুয়ার আসর । এবং পাশেই চলছে পুতুল নাচ নামের অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি ও নৃত্যের আসর। পুলিশের উপস্থিতিতে নির্বিঘ্নে চলছে এসব অসামাজিক কার্যকলাপ। অনুমতি না নিয়েই বহাল তবিয়তে চলছে সার্কাস। মেলায় হস্তশিল্প, ছোটদের বিভিন্ন ধরনের খেলনা, গৃহস্থালী সামগ্রীর দোকান থাকলেও আগত শত শত যুবক ও মধ্যবয়সীরা টিকিট কেটে ঝুঁকছে পুতুল নাচের দিকে। মেলায় পুতুল নাচের প্যান্ডেলের নাম দেওয়া হয়েছে চোখের পলক জাদু প্রদর্শনী।

গড়াই নদীর তীর ঘেঁষে মাঘের অমাবস্যা তীথিতে প্রায় ছয় শতাধিক বছর আগে থেকে প্রতিবছর বসে এই মেলা । মেলা প্রাঙ্গনে অতিরিক্ত সাউন্ডে গান বাজানো, জুয়া ও অশ্লীলতাসহ নানা অসামাজিক কর্মকান্ডে অতিষ্ট হয়ে উঠেছেন স্থানীয়রা । কিন্তু আয়োজক কমিটির ভয়ে প্রকাশ্যে কেউ কিছু বলছেন না।

জানা যায় , জুয়া পরিচালনা এবং পুতুল নামের নামে অশ্লীল নৃত্য পরিচালনার জন্য আয়োজক কমিটি বিভিন্ন মহলে মোটা অংকের টাকা দিয়েছেন। জুয়ার বোর্ডে প্রতি রাতে লক্ষ লক্ষ টাকা লেনদেন হচ্ছে। আয়োজক কমিটিসহ অন্যান্য খরচ মিটিয়েও মোটা অঙ্কের টাকা চলে যাচ্ছে জুয়া পরিচালনাকারীদের পকেটে।

দুই দিন পরেই শুরু হবে এসএসসি পরীক্ষা। শর্ত জুড়ে দেওয়া অনুমতি লঙ্ঘন করে চলছে মেলার কার্যক্রম। এতে করে অন্তত উপজেলার ৫’শতাধিক এসএসসি পরীক্ষার্থী ক্ষতির মুখে পড়বে।

মেলায় প্রকাশ্যে জুয়া ও অশ্লীল নৃত্যর বিষয়টি অস্বীকার করে খোকসা থাকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আননুর যায়েদ বলেন, ভিডিও ফুটেজ থাকলে দিন । এসবের অনুমতি নেই, যদি এমন কিছু হয়ে থাকে খোকসা থানা পুলিশ অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নিবে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইরুফা সুলতানা জানান , বিষয়টি শুনেছি, ইতিমধ্যেই মেলার আয়োজক কমিটির সাথে কথা বলে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

খোকসায় ঐতিহ্যবাহী মেলার নামে চলছে অশ্লীল নৃত্য- জুয়া, প্রশাসন নিরব 

আপডেট সময় : ১২:৩৫:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

স্টাফ রিপোর্টার 

কুষ্টিয়ার খোকসায় ঐতিহ্যবাহী কালীপূজা ও গ্রামীণ মেলা শুরু হয়েছে নয় ফেব্রুয়ারী থেকে। প্রথম দিন থেকেই মেলার নামে চলছে জুয়া ও অশ্লীল নৃত্য। মেলায় জুয়া ও অশ্লীল নৃত্যর বিষয়টি অস্বীকার করে খোকসা থানার ওসি ভিডিও দেখিয়ে প্রমাণ করতে বলেন সাংবাদিকদের।

১০’ ফেব্রুয়ারী শনিবার রাতে সরেজমিনে মেলায় গিয়ে দেখা যায়, মেলার প্রধান দরজায় পুলিশ। দরজার অদুরে বসেছে জুয়ার আসর । এবং পাশেই চলছে পুতুল নাচ নামের অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি ও নৃত্যের আসর। পুলিশের উপস্থিতিতে নির্বিঘ্নে চলছে এসব অসামাজিক কার্যকলাপ। অনুমতি না নিয়েই বহাল তবিয়তে চলছে সার্কাস। মেলায় হস্তশিল্প, ছোটদের বিভিন্ন ধরনের খেলনা, গৃহস্থালী সামগ্রীর দোকান থাকলেও আগত শত শত যুবক ও মধ্যবয়সীরা টিকিট কেটে ঝুঁকছে পুতুল নাচের দিকে। মেলায় পুতুল নাচের প্যান্ডেলের নাম দেওয়া হয়েছে চোখের পলক জাদু প্রদর্শনী।

গড়াই নদীর তীর ঘেঁষে মাঘের অমাবস্যা তীথিতে প্রায় ছয় শতাধিক বছর আগে থেকে প্রতিবছর বসে এই মেলা । মেলা প্রাঙ্গনে অতিরিক্ত সাউন্ডে গান বাজানো, জুয়া ও অশ্লীলতাসহ নানা অসামাজিক কর্মকান্ডে অতিষ্ট হয়ে উঠেছেন স্থানীয়রা । কিন্তু আয়োজক কমিটির ভয়ে প্রকাশ্যে কেউ কিছু বলছেন না।

জানা যায় , জুয়া পরিচালনা এবং পুতুল নামের নামে অশ্লীল নৃত্য পরিচালনার জন্য আয়োজক কমিটি বিভিন্ন মহলে মোটা অংকের টাকা দিয়েছেন। জুয়ার বোর্ডে প্রতি রাতে লক্ষ লক্ষ টাকা লেনদেন হচ্ছে। আয়োজক কমিটিসহ অন্যান্য খরচ মিটিয়েও মোটা অঙ্কের টাকা চলে যাচ্ছে জুয়া পরিচালনাকারীদের পকেটে।

দুই দিন পরেই শুরু হবে এসএসসি পরীক্ষা। শর্ত জুড়ে দেওয়া অনুমতি লঙ্ঘন করে চলছে মেলার কার্যক্রম। এতে করে অন্তত উপজেলার ৫’শতাধিক এসএসসি পরীক্ষার্থী ক্ষতির মুখে পড়বে।

মেলায় প্রকাশ্যে জুয়া ও অশ্লীল নৃত্যর বিষয়টি অস্বীকার করে খোকসা থাকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আননুর যায়েদ বলেন, ভিডিও ফুটেজ থাকলে দিন । এসবের অনুমতি নেই, যদি এমন কিছু হয়ে থাকে খোকসা থানা পুলিশ অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নিবে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইরুফা সুলতানা জানান , বিষয়টি শুনেছি, ইতিমধ্যেই মেলার আয়োজক কমিটির সাথে কথা বলে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ।