ঢাকা ০১:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রবাস জীবন হে ফাগুন দানিয়াল হত্যা মামলার প্রধান আসামী অনিক গ্রেফতার দেশের অন্যতম চরমোনাইর ফাল্গুনের ৩ দিনব্যাপী বাৎসরিক মাহফিল শুরু বুধবার নড়াইলে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার নারায়ণগঞ্জের অস্ত্রের কারখানার সন্ধান পেয়েছে ডিবি রাজারহাট উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে ২১শে ফেব্রুয়ারি’র প্রথম প্রহরে পুষ্পার্ঘ অর্পণ রক্তে কেনা ভাষায় হিন্দুত্ববাদী সাংস্কৃতিক আগ্রাসন রুখে দিতে হবে: ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর উত্তর নড়াইলে সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গে লাখো প্রদীপ জ্বালিয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ নকলায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

কুড়িগ্রামে অনলাইন জুয়ার অবৈধ সফটওয়্যার ডেভেলপার সহ গ্রেফতার ৩

হীমেল কুমার মিত্র স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ১০:৪০:১৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মার্চ ২০২৩ ৭১ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক যখন সময় অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কুড়িগ্রামে অনলাইন জুয়ার অবৈধ সফটওয়্যার ডেভেলপারসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

(৮ মার্চ) বুধবার রাতে জেলার ভুরুঙ্গামারী, রংপুর ও দিনাজপুরে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- অনলাইন জুয়ার সফটওয়্যার ডেভেলপার সুজন মিয়া (২৪), জুয়ার এজেন্ট আবুল কালাম (২২) ও ভবানী রায় (২৮)।

(৯ মার্চ) বৃহস্পতিবার দুপুরে কুড়িগ্রাম পুলিশ লাইন্স হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আল আসাদ মো. মাহফুজুল ইসলাম জানান, উত্তরবঙ্গের অনলাইন জুয়ার সফটওয়্যার ডেভেলপার সুজন মিয়াসহ অনলাইন জুয়ার মুল হোতা আবুল কালাম ও ভবানী রায়কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা, ল্যাপটপ ও বিভিন্ন কোম্পানির সিম কার্ড ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

মো. মাহফুজুল ইসলাম জানান, চক্রটি উত্তরবঙ্গসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় অনলাইনে জুয়ার সফটওয়্যার বিক্রি ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল।

পুলিশ সুপার জানান, এন্টি টেরোরিজম ইউনিটের সাইবার উইংয়ের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রম শনাক্ত করে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, রংপুর শহরের মুলাটল প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন অয়ন ছাত্রাবাস থেকে অনলাইন জুয়ার এজেন্ট আবুল কালামকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে কয়েকটি সিম কার্ড ও নগদ টাকা পাওয়া যায়। তার দেয়া তথ্যমতে, জেলার ভুরুঙ্গামারী উপজেলার ভানা এলাকা থেকে অনলাইন জুয়া সফটওয়্যার ডেভেলপার সুজন মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ল্যাপটপ মোবাইল ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। পরে গ্রেফতারকৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে দিনাজপুরের খানসামা এলাকা থেকে অনলাইন জুয়ার অন্য এজেন্ট ভবানী রায়কে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও জানান, চক্রটি ম্যাক্স প্লেয়ার, স্পোর্টস জোন সফটওয়্যার ব্যাবহার করে সাধারণ মানুষকে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে অনলাইনে জুয়া খেলায় উদ্বুদ্ধ করেন এবং মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে উঠতি বয়সের তরুণদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতো।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কুড়িগ্রামে অনলাইন জুয়ার অবৈধ সফটওয়্যার ডেভেলপার সহ গ্রেফতার ৩

আপডেট সময় : ১০:৪০:১৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মার্চ ২০২৩

কুড়িগ্রামে অনলাইন জুয়ার অবৈধ সফটওয়্যার ডেভেলপারসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

(৮ মার্চ) বুধবার রাতে জেলার ভুরুঙ্গামারী, রংপুর ও দিনাজপুরে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- অনলাইন জুয়ার সফটওয়্যার ডেভেলপার সুজন মিয়া (২৪), জুয়ার এজেন্ট আবুল কালাম (২২) ও ভবানী রায় (২৮)।

(৯ মার্চ) বৃহস্পতিবার দুপুরে কুড়িগ্রাম পুলিশ লাইন্স হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আল আসাদ মো. মাহফুজুল ইসলাম জানান, উত্তরবঙ্গের অনলাইন জুয়ার সফটওয়্যার ডেভেলপার সুজন মিয়াসহ অনলাইন জুয়ার মুল হোতা আবুল কালাম ও ভবানী রায়কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা, ল্যাপটপ ও বিভিন্ন কোম্পানির সিম কার্ড ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

মো. মাহফুজুল ইসলাম জানান, চক্রটি উত্তরবঙ্গসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় অনলাইনে জুয়ার সফটওয়্যার বিক্রি ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল।

পুলিশ সুপার জানান, এন্টি টেরোরিজম ইউনিটের সাইবার উইংয়ের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রম শনাক্ত করে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, রংপুর শহরের মুলাটল প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন অয়ন ছাত্রাবাস থেকে অনলাইন জুয়ার এজেন্ট আবুল কালামকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে কয়েকটি সিম কার্ড ও নগদ টাকা পাওয়া যায়। তার দেয়া তথ্যমতে, জেলার ভুরুঙ্গামারী উপজেলার ভানা এলাকা থেকে অনলাইন জুয়া সফটওয়্যার ডেভেলপার সুজন মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ল্যাপটপ মোবাইল ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়। পরে গ্রেফতারকৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে দিনাজপুরের খানসামা এলাকা থেকে অনলাইন জুয়ার অন্য এজেন্ট ভবানী রায়কে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও জানান, চক্রটি ম্যাক্স প্লেয়ার, স্পোর্টস জোন সফটওয়্যার ব্যাবহার করে সাধারণ মানুষকে বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে অনলাইনে জুয়া খেলায় উদ্বুদ্ধ করেন এবং মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে উঠতি বয়সের তরুণদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতো।